বাবা দিবসে বাবাকে দিতে পারেন যে ৫টি উপহার

ছোটবেলায় বাবার কাঁধ যেনো ছিলো চির শান্তির জায়গা


যে কোনো সন্তানের কাছেই তাঁর বাবা একজন সুপার হিরো। জীবনে যিনি সুপার হিরো, তাঁকে কি উপহার দিবেন বিশেষ দিনে? ভালোবাসা বাদে পৃথিবীতে এমন কোনো উপহার নেই, যা পেলে খুশি হবেন বাবা। সন্তান ভালো থাকলেই ভালো থাকেন বাবা ও মা। তারপরেও সন্তানের চেষ্টা থাকে বাবাকে কিছু না কিছু উপহার দেওয়ার।এই লেখায় তুলে ধরা হলো এমন ৫ টি উপহার এর কথা, যা আপনার বাবার জন্য হতে পারে সত্যি অনন্য অসাধারণ। 


বাবার জন্য তৈরি করুন স্পেশাল কেক


আপনি যদি নতুন রান্না শিখে থাকেন, তাহলে বাবার জন্য তৈরি করতে পারেন একটি স্পেশাল কেক। আগে যদি কেক তৈরি করার অভ্যাস না থাকে, তাহলেও আপনি কাজটি পারবেন। ইউটিউব এ কেক বানানোর অনেক ভিডিও পাওয়া যায়। ভিডিও দেখে দেখে কেক বানানো শিখে নিতে পারেন। আপনার হাতে বানানো প্রথম কেক দেখলে বাবা খুব খুশি হবেন। কেকের স্বাদের চেয়ে আপনার চেষ্টা বাবাকে অন্যরকম আনন্দ দিবে। আপনি যে বড় হয়েছেন, আপনি যে কিছু একটা পারেন এটি ভেবে হয়তো আপনার বাবা অন্যরকম তৃপ্তি পাবেন। যদি একান্তই আপনার কেক বানাতে আগ্রহ বা সময় না থাকে, তাহলে ব্যাকারি থেকে অর্ডার করে আনতে পারেন একটি কেক। কেকের উপরে দিতে পারেন আপনার ও বাবার অথবা শুধুমাত্র বাবার  ছবি। 


বাবার ছবি দিয়ে তৈরি করুন মগ


মধ্য বয়সে বা বেশি বয়সে বাবাদের কিছু অভ্যাস গড়ে ওঠে। যেমন অনেকের বাবা চা বা কফি পান করতে পছন্দ করেন। আপনার বাবার যদি এই অভ্যাস থাকে, তাহলে বিশেষ দিবসে বাবাকে দিতে পারেন সিম্পল একটি চায়ের মগ। বাবা দিনে একবার চা, কফি পান করুন কিংবা বহুবার, আপনার উপহার দেওয়া মগটি বাবাকে দিবে অন্যরকম আনন্দ। আপনি নিঃসন্দেহে বাবা মায়ের প্রিয় সন্তান। আপনি চাইলেই আপনার নিজের কোনো ছবি অথবা আপনার বাবা ও মায়ের সাথে তোলা কোনো ছবি মগে প্রিন্ট করে দিতে পারবেন। বাজারে এখন এমন মগও পাওয়া যায়, সাধারণত দেখতে কালো মনে হবে। মগে গরম পানি, চা বা কফি ঢালার সঙ্গে সঙ্গে আপনার প্রিন্ট করা ছবির রিফলেকশন দেখা যাবে। 


উপহার দিন ফটো ফ্রেম

 
এমন তো হতেই পারে, আপনি বাবা মায়ের কাছ থেকে থাকেন অনেক দূরে। দেশে বা দেশের বাইরে, যেখানেই থাকেন, বিশেষ দিনে বাবাকে দিতে পারেন একটি ফটো ফ্রেম। আপনার বাবার সাথে আপনার ছবি বাঁধাই করে দিতে পারেন। এক বা একাধিক ফ্রেম বাঁধাই করে আপনার ঘর বা বাবার ঘরটি সাজাতে পারেন একটু অন্যরকমভাবে।  এতে আপনার ঘরে যেমন সর্বক্ষণ থাকবে আপনার বাবার উপস্থিতি, তেমনি আপনার বাবার ঘরেও থাকবেন আপনি। ৪বিশেষ দিন হাইলাইটস করে দিন ক্যালেন্ডার

দিতে পারেন কাস্টমাইজড ক্যালেন্ডার


আপনি তো জানেন, আপনার বাবার জন্মদিন কোন মাসের কত তারিখে। বাবা মায়ের ম্যারেজ ডে তো আপনার মনে আছে! আপনার জন্মদিন বা আপনার ফ্যামিলি মেম্বারদের জন্ম তারিখগুলো আলাদা হাইলাইটস করে তৈরি করতে পারেন একটি কাস্টমাইজড ক্যালেন্ডার। ক্যালেন্ডারে প্রিন্ট করে দিতে পারেন আপনার নিজের, আপনার বাবা মা ও ফ্যামিলি মেম্বারদের ছবি। আপনাদের পছন্দের বিশেষ কোনো স্থানের ছবি প্রিন্ট করতে পারেন ক্যালেন্ডারে। বছরের যে কোনো সময় থেকে শুরু করতে পারেন ক্যালেন্ডার। ডেস্ক ক্যালেন্ডার, পোস্টার ক্যালেন্ডার, দেয়াল ক্যালেন্ডারও তৈরি করতে পারেন।

বাবার জন্য তৈরি করুন ফটো স্টোরি


বাবার হাত ধরে আপনি হয়তো প্রথম হাঁটতে শিখেছেন।  বাবার হাতের আঙুল ধরে হয়তো তুলেছেন কোনো ছবি। ছোটবেলা থেকে বাবার কাঁধে চড়ে তুলেছেন বহু ছবি। বাবাকে হয়তো বানিয়েছেন হাতি ঘোড়া। ছোট বেলা থেকে আপনার বেড়ে ওঠার ছবি দিয়ে তৈরি করতে পারেন একটি ফটো স্টোরি। চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবে এই ফটো স্টোরি। 

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s