এই সময়ের উপহার

ফুল, চকলেট, শুভেচ্ছা কার্ড উপহার দেওয়ার প্রচলন ছিল এক সময়। সময়ের সাথে পাল্টে গেছে উপহার দেওয়ার মাধ্যম। শুভেচ্ছা কার্ডের পরিবর্তে এখন শুভেচ্ছা বার্তা বা শুভেচ্ছা ম্যাসেজ বা এসএমএস পাঠানোর যুগে বাস করছি আমরা। ফেসবুকে বিশেষ সাইন দিয়ে মনের কথা প্রকাশের দিন এখন৷ প্রিয়জনের সাথে দিনের পর দিন দেখা না হলেও অদেখার তৃষ্ণা থাকে না এখন। সামান্য একটি ভিডিও কলেই পৃথিবীর যে কোনো প্রান্ত থেকে দেখা যায় প্রিয়জনের মুখ। শোনা যায় প্রিয়জনের কথা, হাসি। অনুভব করা যায় আনন্দ, উচ্ছ্বাস। এমন প্রিয়জনকে কি উপহার দিবেন?

মগে নিজের ছবি প্রিন্ট করে দিন প্রিয়জনকে
  • এ যুগে প্রিয়জনকে উপহার দিতে পারেন একটি ফটো বুক। প্রিয় মুহূর্তগুলোকে ধরে রাখার জন্য এটি দারুণ আইডিয়া। একসঙ্গে কাটানো স্মরণীয় মুহূর্তগুলো এক জায়গায় নিয়ে আসুন। আপনাদের একসঙ্গে তোলা প্রতিটি ছবি নিয়ে বানিয়ে ফেলুন একটি অ্যালবাম। ছবিগুলোর নিচে সেই মূহূর্তের কথাও ছোট করে লিখে দিন। কোথায় কখন তুলেছেন, তা সংক্ষিপ্ত করে লিখে নিন। লিখতে পারেন ভালোবাসার ম্যাসেজও। বহুদিন পরও এই উপহারটি আপনার সঙ্গীকে আনন্দ দেবে। এর জন্য মার্কেটে যেতে হবে না। অনলাইনে নিজেই নকশা ও প্রিন্ট করতে পারবেন ফটো বুক।
  • আপনার সঙ্গী কি চা বা কফি খেতে পছন্দ করেন? যদি পছন্দ করেন, তবে কফি মগ হতে পারে তার ভালো উপহার। বিভিন্ন রঙের, বিভিন্ন ছবিখচিত মগ পাওয়া যায় বাজারে। এসব আপনার জন্যে নয়। আপনি নিজেই ডিজাইন করে দিবেন নিজের ছবি দিয়ে। প্রতিবার চা বা কফি পান করার সময় আপনার প্রিয়জন দেখবে আপনার মুখ। মগে ভালোবাসার মেসেজও লিখে দিতে পারেন। প্রতিদিন চায়ের চুমুকে মনে পরবে আপনার কথা।
  • ফ্যাশনে টি-শার্ট এর ব্যবহার কিন্তু বেশ হয়। প্রিয়জন যদি ফ্যাশন সচেতন হন তবে তাকে টি-শার্ট উপহার দিতে পারেন। বিভিন্ন ব্যান্ডের টি-শার্ট এর চেয়ে ছবি দিয়ে নকশা করা একটি টি-শার্ট তাকে অন্যরকম আনন্দ দিবে। টি-শার্ট কেনার জন্য এখন বাজারে বা শো রুমে যেতে হবে না। অনলাইনেই ডিজাইন করা যাবে পছন্দের টি-শার্ট।
  • বাজেট বেশি থাকলে একটি কাস্টমাইজ ক্যালেন্ডার নকশা ও প্রিন্ট করে দিতে পারেন। নিজেদের ছবি বসানোর পাশাপাশি স্মরণীয় যে কোনো দিন হাইলাইটস করে ক্যালেন্ডার নকশা ও প্রিন্ট করা যাবে অনলাইনে।
  • ব্লুটুথ ইয়ারফোন বা ওয়্যারলেস হেডফোন উপহার দিতে পারেন। এখন এগুলোর জনপ্রিয়তা খুব বেশি। আপনার সঙ্গী যদি গান শুনতে খুব ভালবাসে বা ইলেকট্রনিকস জিনিস তার খুব পছন্দের হয়, তাহলে তার জন্য বেস্ট গিফট এটি। এগুলো বহন করাও বেশ সহজ। বেড়াতে, কাজের মাঝে এই উপহারটি বেশ কাজে দিবে।
  • প্রিয়জন যদি ল্যাপটপ ব্যবহার করে, তবে তাকে ব্যাগ উপহার দিতে পারেন। সুন্দর, টেকসই ল্যাপটপ ব্যাগ দিন। এগুলো অনলাইনেই পাবেন।
  • বইপ্রমী ভালোবাসার মানুষের জন্য বই ছাড়া অন্য উপহারের কোনো গুরুত্ব নেই। পছন্দের লেখকের বই উপহার দিন।
  • একটি ছবি বাঁধাই করে দিতে পারেন প্রিয়জনকে। যে কোনো সাইজের ফ্রেমে বাঁধাই করে দিন। স্মৃতিগুলো যত্নে থাকবে বহুদিন। থাকবে একেবারে চোখের সামনে।
  • সবশেষ কথা, ভালোবাসা যেমন অমূল্য, এর উপহারগুলোও অমূল্য। ছোট-বড় কিংবা দামের ওজনে পরিমাপ না করে যেকোনো উপহারই প্রিয়জনকে খুশি করতে পারে। তাই আপনার প্রিয়জনকে সময়ের সাথে রাখুন, আপনিও থাকুন সময়ের সাথে। প্রিয়জনকে উপহার দিন এই সময়ের সেরা অনলাইন ফটো টেকনোলজি টুলস Picsmela থেকে যে কোনো কাস্টমাইজ পণ্য।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s